✅🔴 চুপিচুপি রাতে কী হলো, আর সকালে বলে দিল হয়ে গেছে। ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন নয়, রাজচালাকি হয়েছে।

281
Published on January 11, 2019 by

💡 ৩০ ডিসেম্বর ছিল রাজ চালাকির সুন্দর উদাহরণ। সুস্থ মানসিকতার কেউ এসব করতে পারে না। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের স্মৃতিচারণা করেন ড. কামাল। বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে একই উড়োজাহাজে দেশে ফিরেছিলেন জানিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু নীতির প্রশ্নে আপসহীন ছিলেন। ওই মাপের নেতৃত্ব ছিল বলেই দেশ স্বাধীন হয়েছিল। বঙ্গবন্ধু বাস্তবতাকে মূল্যায়ন করতে পারতেন। সঠিকভাবে সঠিক সময়ে সঠিক জিনিসটাকে তুলে ধরতেন।

৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘স্বাধীন সার্বভৌম দেশে সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নেবে। চুপিচুপি রাতে কী হলো, আর সকালে বলে দিল হয়ে গেছে। রাষ্ট্রকে নিয়ে তো এভাবে খেলা করা যায় না। যারা এগুলো করছে, তারা না বুঝে করছে। যারা উপদেশ দিচ্ছে, তারা সঠিক উপদেশ দিচ্ছে না। এই যে তৃতীয়বারের মতো পাঁচ বছরের জন্য যাচ্ছি, এই ধরনের তথাকথিত নির্বাচন…এটা কোনো সুস্থ মানুষের করার কথা না। মানসিকভাবে সুস্থ থাকলে কেউ এগুলো করতে পারে না। এটি অসুস্থ মানসিকতার পরিচয়। সংবিধান অনুযায়ী এটা হয় না।’

বঙ্গবন্ধুর প্রসঙ্গ টেনে কামাল হোসেন বলেন, ‘এ ধরনের কাজকে বঙ্গবন্ধু বলতেন রাজ চালাকি। আমরা রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছি রাজ চালাকিতে। ৩০ ডিসেম্বর ছিল রাজ চালাকির সুন্দর উদাহরণ।’ তিনি আরও বলেন, তৃতীয়বারের মতো একজন প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছেন। ৩০০ লোক সাংসদ হয়ে গেছে। আর বিরোধী দলে সাতজন। এটা কোনো খেলা নয়। ১৭ কোটি মানুষকে নিয়ে খেলা করা যায় না।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘সত্যি খুব দুঃখ লাগে। ৩০ ডিসেম্বর যে ঘটনাটা— ৪৮ বছর পর এটা দেখতে হচ্ছে। এটা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। এটা তো হবার কথা না। ৪৮ বছর পরে এটা কেন হবে? আমি তো সরলভাবে বলেছি সকালে সকালে গিয়ে ভোট দেবেন। কিন্তু ঘটনা তো রাতেই ঘটে গেছে।’

‘আমরা তো কেউ টেরই পেলাম না। এটা তো হবার কথা না। কেন এভাবে হতে হবে। আমি প্রশ্নগুলো আজ এভাবেই রাখতে চাই। এইসব অস্বাভাবিক কাজ কেন হবে? এখন ঘোষণা হচ্ছে, থার্ড টাইমের জন্য একজন প্রধানমন্ত্রী হয়ে গেছেন! তিন শ’ লোক সংসদ সদস্য হয়ে গেছেন। আর অপজিশনে মাত্র সাত জন!’

‘আসুন বছরের প্রথমদিকে সংকট সৃষ্টি না করে, জাতীয় সংলাপ হবে সবচেয়ে ভালো পথ। সংলাপের মধ্য দিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক, কীভাবে আমরা সংবিধানকে মেনে নির্বাচন করে নির্বাচিত সরকার গঠন করব।’

আ স ম আবদুর রব বলেন, কামাল হোসেনের নেতৃত্বে যাঁরা ঐক্যফ্রন্ট গঠন করেছেন তাঁরা বিদেশের কোনো নির্দেশে রাজনীতি করেন না। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের অতি ক্ষমতার লোভ। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের কথা স্মরণ করে রব বলেন, বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতা সমার্থক। একটা বাদ দিয়ে আরেকটাকে উপলব্ধি করা যায় না।

আবু সাইয়িদ বলেন, বিদেশে সংবিধান প্রণেতাদের সম্মান করা হয়। কিন্তু এ দেশে অসম্মান করা হয়। মুজিব কোট গায়ে দিলেই মুজিবের আদর্শ ধারণ করা যায় না। বঙ্গবন্ধু কোনো জাতির, দলের বা পরিবারের নন—তিনি বিশ্ব নেতা।

সুস্থ মানসিকতার কেউ এসব করতে পারে না। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন একটি অসুস্থ মানসিকতার পরিচয়। বঙ্গবন্ধু এটাকে বলতেন রাজচালাকি। নতুন নির্বাচন আয়োজনে জাতীয় সংলাপ ডাকুন: ড. কামাল হোসেন

✅ PLEASE SUBSCRIBE
https://www.youtube.com/bdtopten
🔔DON’T FORGET TO CLICK THE BELL ICON🔔

✅ BDTOPTEN Tube:
https://www.tube.bdtopten.com/author/bdtopten/

Follow us on Linkedin:
https://www.linkedin.com/company/bdtopten/

Follow us on Twitter:

Like us on Facebook:
https://fb.com/bdtop10

Join us on Facebook:
https://fb.com/groups/bdtopten

✅ Web: https://www.bdtopten.com

Category Tag

Add your comment

Your email address will not be published.